রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৮:১৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :::
সিলেটের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিলেট ফোকাস নিউজ ডটকম এর জন্য সিলেট বিভাগসহ দেশ বিদেশে সংবাদদাতা ও জেলা উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা ইমেইলে আপনাদের সিভি পাঠাতে পারেন।
শিরোনাম ::::
নারী নির্যাতন প্রতিরোধে জাতীয় মহিলা সংস্থা সিলেটের উঠান বৈঠক সিলেটে নাতির কোলে চড়ে ভোট দিলেন শতবর্ষী নানী! গোল্ডেন ড্রীম ওমেন অর্গানাইজেশনের ফ্রী খতনা ক্যাম্প সম্পন্ন সিলেটে তৃতীয় ধাপে ৭৭ ইউনিয়নে ভোটযুদ্ধ নিজেকে বিয়ে করা সেই মডেল এবার চাইলেন বিচ্ছেদ ‘সক্কাল সক্কাল… অর্গাজম’! চমকে দিলেন শ্রীলেখা শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করছে বাংলাদেশ অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে আন্দোলন করছে বিএনপি : কৃষিমন্ত্রী মিরপুরে গার্মেন্টস কর্মীদের সড়ক অবরোধ বরিশালে একই পরিবারের পাঁচ সদস্যের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ ছাত্রদল নেতা সামসুদ্দোহার পিতার মৃত্যুতে সিলেট ছাত্রদলের শোক সিলেটে বন্ধ প্রচারণা, অপেক্ষা ভোটের মরহুম হাজী মাহমদ আলী খান ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট উদ্বোধন:-এমপি হাবিব নারীদের ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা অপরীসিম-সিলেটে পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোটারী ক্লাব অব সিলেট সিটির ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও ওষুধ বিতরণ ৩নং তেতলী ইউনিয়ন যুবদলের প্রতিনিধি সভা সম্পন্ন সিলেটকে চিকিৎসা সেবার অন্যতম কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেট কোর্ট পয়েন্টে সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধ আন্দোলনের মানববন্ধন চিন্ময় চৌধুরী রচিত গ্রন্থ “জ্যোতিষ শাস্ত্রের কথা” বই এর মোড়ক উন্মোচন
বাস্থ্য পরীক্ষা ছাড়াই আসছে মিয়ানমারের পশু

বাস্থ্য পরীক্ষা ছাড়াই আসছে মিয়ানমারের পশু

ফোকাস ডেস্ক::  টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ করিডোর দিয়ে মিয়ানমারের গরু-মহিষ আমদানীর ঢল নেমেছে। গত দুই দিনে ৩ হাজারেরও বেশি পশু আমদানী হয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

ঈদের যেকদিন বাকি সময় রয়েছে এরমধ্যে আরও ১০ হাজার গবাদী পশু আমদানীর কথা বলছেন তারা। করিডোর দিয়ে মিয়ানমার থেকে ট্রলারযোগে প্রতিদিন জেলায় প্রবেশ করছে মিয়ানমারের পশু। নিয়ম রয়েছে এসব পশু দেশে প্রবেশের আগেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার। কিন্তু প্রবেশকালে টেকনাফ করিডোরে তা হচ্ছে না। নেই কোনো পশু চিকিৎসক।

তবে কোনো ধরনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ছাড়াই প্রবেশ করছে মিয়ানমার থেকে আমদানীকৃত এসব কোরবানি পশু। করিডোর দিয়ে আসা প্রতিদিন শত শত রোগাক্রান্ত পশু চলে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। এ কারণে হুমকির মুখে রয়েছে দেশের জনস্বাস্থ্য ও প্রাণিসম্পদ।

সূত্রে জানা যায়, বৈরী আবহাওয়ার কারণে কয়েকদিন মিয়ানমার থেকে কোরবানি পশু আমদানী বন্ধ ছিল। তবে কোরবানির ঈদ সামনে রেখে আবারও পুরোদমে শুরু হয়েছে পশু আমদানী কার্যক্রম। টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ করিডোরে মিয়ানমার থেকে ১ হাজার ১২৯টি গবাদি পশু আমদানী করা হয়েছে। আজ এসেছে প্রায় ৩ হাজার ৮০০শ’ পশু। ঈদের আগে আরও ১০ হাজারেরও বেশি কোরবানিযোগ্য পশু আমদানীর টার্গেট রয়েছে ব্যবসায়ীদের।

আমদানীকারক ও ব্যবসায়ী সোহেল রানা বলেন, ‘কোরবানির মৌসুমে এরইমধ্যে মিয়ানমার থেকে ৫ হাজার গবাদিপশু আমদানি করেছি। আজ নিয়ে এসেছি ১২২টি। কোরবানির ঈদের আগে আরও ১ হাজার পশু আমদানীর টার্গেট রয়েছে।’

টেকনাফ শুল্ক স্টেশন কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, কোরবানির ঈদের বাকি মাত্র দুইদিন। আমদানিকারকদের মিয়ানমার থেকে আরও বেশি পশু আমদানি করতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। কোরবানির ঈদের ভেতর আরও ১০ হাজার গবাদি পশু আনার কথা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মিয়ানমার থেকে সাগর পথে শাহপরীর দ্বীপ করিডোরে প্রায় ৫ হাজারেরও বেশি গরু-মহিষ এসেছে। গত কয়েকদিনে পশু আমদানী খাতে সরকার পাঁচ লাখ ৮৮ হাজার টাকা রাজস্ব পেয়েছে।

টেকনাফ শুল্ক বিভাগ সূত্র জানায়, চলতি আগষ্ট মাসের প্রথম ১৩ দিনে ৫ হাজার ৬৭৬টি গবাদিপশু আমদানি করা হয়। এর মধ্যে ৪ হাজার ৭৫টি গরু এবং ১ হাজার ৪৭৯টি মহিষ। এতে সরকার ২৮ লাখ ৩৮ হাজার রাজস্ব পেয়েছে।

উপজেলা পশু আমদানিকারক সমিতির সভাপতি মো. আব্দুল্লাহ মনির বলেন, ‘পশু আমদানি থেকে সরকার কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করলেও ব্যবসায়ীরা কোনো সুবিধা পাচ্ছেন না। দেশে গবাদি পশুর চাহিদা থাকায় মিয়ানমার থেকে পশু আমদানী আগের তুলনায় কয়েক গুন বেড়েছে। শাহপরীরদ্বীপে ব্যাংক ও শুল্ক বিভাগের শাখা না থাকায় নানা দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তাছাড়া গবাদিপশু ট্রলার থেকে নামানোর জন্য নেই কোন পর্যাপ্ত ব্যবস্থা।

কক্সবাজার প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের কর্মকর্তা ডা. নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, করিডোর দিয়ে মিয়ানমার থেকে প্রবেশকৃত পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা জন্য টেকনাফের দমদমিয়ায় একটি মিনি পশু হাসপাতাল রয়েছে। তবে সে হাসপাতালে জনবল নিয়োগ এখনো দেয়া হয়নি বলে কার্যক্রম শুরু হয়নি। প্রতি বছরের ন্যায় এবারেও স্থানীয় আমদানীকারক ও গবাদিপশু ব্যবসায়ীগণ কোরবানীর চাহিদা পুরণে কাজ করে যাচ্ছেন। অন্য বছরের চেয়ে এবারে মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু আসছে বেশি।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া বলেন, শাহপরীরদ্বীপ করিডোরে গবাদী-পশু ব্যবসায়ীদের জন্য প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পশু সরবরাহের ক্ষেত্রে পথে যেন কোন চাঁদাবাজি না হয় এবং পশু বোঝাই ট্রলারে করে যাতে কোনও মাদক ঢুকতে না পারে সে বিষয়ে নজরদারি রয়েছে।

মিয়ানমার থেকে চোরাইপথে পশু আসা রোধে ২০০৩ সালে ২৫ মে শাহপরীর দ্বীপে করিডর চালু হয়। তখন থেকে প্রতিটি গবাদিপশুর বিপরীতে সরকারি রাজস্ব আদায় হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © sylhetfocusnews.com
Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo