শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :::
সিলেটের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিলেট ফোকাস নিউজ ডটকম এর জন্য সিলেট বিভাগসহ দেশ বিদেশে সংবাদদাতা ও জেলা উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা ইমেইলে আপনাদের সিভি পাঠাতে পারেন।
শিরোনাম ::::
বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাল আর্জেন্টিনা ফুটবল আজমিরীগঞ্জ-শাল্লা মহাসড়কের কাজে ধীরগতি সিলেটে বড় বোনের মেয়েকে নিয়ে তরুণী লাপাত্তা! মাহা-সিলেট জেলা প্রেসক্লাব বার্ষিক অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার ফলাফল সিলেটে বিশ্ব এইডস দিবসে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের র‌্যালি মহান বিজয়ের মাস ডিসেম্বর বরণ উপলক্ষে শীতবস্ত্র বিতরণ সিবিএ নির্ধারণী নির্বাচনে জালালাবাদ গ্যাস কর্মচারী লীগের নিরঙ্কুশ জয় লাভ নতুন জাতের ধান বীজ বিতরণ নিসচা’র ২৯তম প্রতিষ্ঠাতাবার্ষিকীতে র‌্যালি সিলেটে কলেজছাত্রকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে পুলিশের ৩ সদস্য বরখাস্ত শপথ নিলেন ওসমানীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি শামীম বর্ণিল শোভাযাত্রায় সিলেটে বিজয়ের মাস বরণ মুক্তাদির এর সাথে জিসাস সিলেট জেলা ও মহানগর কমিটির সৌজন্য সাক্ষাৎ বিএনপি এবার আগুন সন্ত্রাসের ফাঁদে পা দেবে না: আমির খসরু নতুন সদস্যদের সাথে জেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা মতবিনিময়  কর অঞ্চল-সিলেটের জাতীয় আয়কর দিবস উদযাপন আগামী তিন মাস বন্ধ থাকবে ট্রেন সাভার থেকে চুরি হওয়া শিশু সিলেট থেকে উদ্ধার সিলেটের বিয়ের দুইদিন আগে পানিতে ডুবে প্রবাসী তরুণীর মৃত্যু সিলেট তামাবিলসহ তিন শুল্ক স্টেশন হবে আধুনিক, ব্যয় ৩১৩ কোটি টাকা
ছালিয়ায় কোমলমতি শিক্ষার্থীকে শিক্ষিকার বেত্রাঘাত

ছালিয়ায় কোমলমতি শিক্ষার্থীকে শিক্ষিকার বেত্রাঘাত

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি  :: সিলেট সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ছালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণীর সৃষ্টি দাস নামের কোমলমতি শিক্ষার্থীকে অমানবিক ভাবে বেত্রাঘাত করেছেন ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ছাবিনা বেগম।

সৃষ্টি দাসের পিত শংকর দাস জানান- তার মেয়ে সৃষ্টি দাস পড়া ও লেখায় খুব মনযোগী। সে নিয়মিতভাবে বিদ্যালয়ে যাতায়াত করে। তার লেখাপড়ার জন্য বাড়ীতেও একজন শিক্ষক রয়েছেন। প্রতিদিনের ন্যায় রবিবারও বিদ্যালয়ে যায় তার মেয়ে। ওইদিন শ্রেণী কক্ষে সকল শিক্ষার্থী হৈচৈ করছিল হঠাৎ সহকারী শিক্ষিকা ছাবিনা শ্রেণী কক্ষে প্রবেশ করে সৃষ্টি দাসের উপর বেধরক বেত্রাঘাত শুরু করেন। এ সময় পাশের কক্ষের শিক্ষক দৌড়ে এসেও ছাবিনার হাত থেকে ওই শিক্ষার্থীকে রক্ষা করতে পারেননি। ছাবিনা বেগমের বেত্রাঘাতে কোমলমতি এ শিক্ষার্থীর শরীরের বিভিন্ন অংশ থেকে রক্ত করণ হয়। তিনি ডা. দেখিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন সৃষ্টি দাসের জানান।

এ ব্যাপারে ছালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ছাবিনা বেগম এ প্রতিবেদকে জানান রবিবার ৩য় শ্রেণী কক্ষে শিক্ষার্থীরা খুব হইচই করছিল হঠাৎ আমার মাথা গরম হয়ে আমি সৃষ্টি দাসকে বেত্রাঘাত করি। আসলে এ ভাবে তাকে বেত্রাঘাত করা আমার উচিৎ হয়নি এ বিষয়ে আমি দু:খিত।

উক্ত বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মফিজুর রহমান বাদশাহ বলেন- সহকারী শিক্ষিকা ছাবিনা বেগম অবুঝ শিশুটির উপর যে নির্যাতন করেছেন তা দু:খজনক। আমার কাছে শিশুটিকে নিয়ে তার বাবা এসেছিলেন আমি তাকে শান্তনা দিয়ে বলেছি যথাযথ কতৃপক্ষের মাধ্যমে এ বিষয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সৃষ্টি দাসের পিতা শংকর দাস বলেছেন তিনি সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহি অফিসারকে এ বিষয়ে অবগত করেছেন। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

তিনি আরও জানান- উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের সাথে দেখা করার পর থেকে ওই শিক্ষিকা ও তার স্বামী আমার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা চেষ্টা চালাচ্ছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © sylhetfocusnews.com
Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo